ব্যবসা ও বাণিজ্য

মাইক্রো ফিনান্স ক্রেডিট ইনফরমেশন ব্যুরোর উপর ভার্চুয়াল সমাপনী অনুষ্ঠান করলো বিজনেস ফিন্যান্স ফর দ্যা পুওর ইন বাংলাদেশ

মাইক্রো ফিনান্স ক্রেডিট ইনফরমেশন ব্যুরো (এমএফ-সিআইবি) মাইক্রো ক্রেডিট খাতে যে ইতিবাচক পরিবর্তন এনেছে, তা বুঝতে এবং আলোচনা করার জন্য বিজনেস ফিন্যান্স ফর দ্যা পুওর ইন বাংলাদেশ (বিএফপি-বি) প্রোগ্রাম আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় একটি ভার্চুয়াল সমাপনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। যুক্তরাজ্য সরকারের ফরেন, কমনওয়েলথ এবং ডেভেলপমেন্ট অফিসের অর্থায়নে প্রোগামটি পরিচালিত হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ, মোঃ আসাদুল ইসলাম প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এফসিডিও এর ডেপুটি টিম লিডার আফসানা ইসলাম, বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর কাজী সায়েদুর রহমান বিশেষ অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ করেছেন।

বিএফপি-বি এর সিনিয়র উপদেষ্টা এবং টিম লিড রাবেয়া ইয়াসমিনের সভাপতিত্বে বৈঠকে এমআরএ এর নির্বাহী ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ ফশিউল্লাহও যুক্ত ছিলেন। অনুষ্ঠানে অতিথিগ্ণ গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন এবং বিশেষজ্ঞরা মূল্যবান মতামত দেন।

প্রধান অতিথি সিনিয়র সচিব আসাদুল ইসলাম বলেন, “এই সেক্টর অনানুষ্ঠানি্ক সেক্টরের ক্লায়েন্টদের সাথে কাজ করে, এ কারণেই আমাদের এই সেক্টরের তথ্যে সঠিক অ্যাক্সেস নেই। যেহেতু, আমাদের কাছে তাদের তথ্য নেই, আমরা তাদের কাছে পৌঁছাতে পারি না ফলে তারা বেশিরভাগই আনুষ্ঠানিক খাতে সরবরাহ করা সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়। মাইক্রো ফিনান্স ক্রেডিট ইনফরমেশন ব্যুরো (এমএফ-সিআইবি) এর উদ্দেশ্য হলো ক্ষুদ্র ঋণ খাত সম্পর্কিত তথ্য সংগ্রহ করা এবং এবং এই তথ্য দিয়ে ক্ষুদ্র ঋণ খাতে সুবিধা সরবরাহ করার কাজে সহযোগিতা করা।”

এমআরএ এর নির্বাহী ভাইস চেয়ারম্যান ও প্রাক্তন গর্ভনর মোঃ ফশিউল্লাহ বলেন, “মাইক্রো ফিনান্স ক্রেডিট ইনফরমেশন ব্যুরো (এমএফ-সিআইবি) এর ক্রেডিট তথ্য বিশ্লেষণ করে এবং ব্যবহার করে ক্ষুদ্র ঋণ খাতটির বিকাশের মাধ্যমে আমরা প্রধানমন্ত্রীর দারিদ্র্য ও ক্ষুধা মুক্ত, উন্নত বাংলাদেশ এবং জাতির পিতার একটি সমৃদ্ধ সোনার বাংলার স্বপ্নকে সামনে নিয়ে যাবো।”

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রাক্তন গভর্নর ড. আতিউর রহমান বলেন, “তথ্য হলো অর্থনীতির শক্তি এবং বৃহত্তম পুঁজি এবং ডেটা ম্যানেজমেন্টই বাংলাদেশে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স প্রয়োগের মূল চাবিকাঠি। তিনি আরো বলেন, “আমরা মহামারী সংকট থেকে বেরিয়ে আসার যে স্বপ্ন দেখছি সেক্ষেত্রে বড় ভূমিকা রাখতে পারে মাইক্রো ফিন্যান্স।“

বেসরকারী সেক্টরের উপদেষ্টা ও এফসিডিও এর ডেপুটি টিম লিডার আফসানা ইসলাম তার বক্তব্যে বলেন,

“মাইক্রো ক্রেডিট খাতে তথ্যের অসামঞ্জস্যতা বরাবরই সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। ইউকে এইডের সাহায্যে, আমরা আশা করি মাইক্রো ফিনান্স ক্রেডিট ইনফরমেশন ব্যুরো বাংলাদেশের ছোট ঋণ গ্রহীতাদের মধ্যে এক বড় পরিবর্তন আনবে।”

এমএফ–সিআইবি এর আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞ জিম আজিজ, নাথান অ্যাসোসিয়েটসের গ্লোবাল প্র্যাকটিসেসের প্রধান বুদ্ধিকা সমরসিংহে, বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রাক্তন গভর্নর ড.আতিউর রহমান এবং অর্থ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ, অরিজিৎ চৌধুরীও অধিবেশনটির সাথে সংযুক্ত ছিলেন।

বিজনেস ফিন্যান্স ফর দ্যা পুওর ইন বাংলাদেশ (বিএফপি-বি) ২০১৮ সাল থেকে এমএফ-সিআইবি এর বাস্তবায়নে বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রযুক্তিগত সহায়তায় মাইক্রোক্রেডিট রেগুলেটরি অথরিটির (এমআরএ) এর সাথে কাজ শুরু করে। বিগত ৩১ মাসের সময়কালে, এই প্রোগ্রামটি প্রয়োজনীয় সমস্ত বড় কার্যক্রমকে সমর্থন ও সম্পন্ন করেছে যা বাংলাদেশে আর্থিক অন্তর্ভুক্তকরণের জন্য একটি ঐতিহাসিক মাইলফলক।

Related Articles

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker